কসবায় বিদ্যুৎস্পর্শে আহত দুই শিশুর মধ্যে একজনের মৃত্যু

0 1

রুবেল আহমেদ : কসবায় বিদ্যুৎস্পর্শে গুরুতর আহত একই পরিবারের দুই শিশুর মধ্যে ছোট শিশু রাহাত মিয়া (১০) মারা গেছে। সোমবার ( ৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাষ্টিক সার্জারী ইনষ্টিটিউট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মারা যায় শিশু রাহাত।

নিহত রাহাত কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের সৈয়দাবাদ গ্রামের হান্নান মিয়ার ছেলে। এখনো মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে টিকে আছে হান্নান মিয়ার বড় ছেলে রাফি মিয়া (১২ )। বিদ্যুৎস্পর্শে পুড়ে যাওয়ায় রাফির শরীর থেকে হাত কেটে ফেলা হয়েছে এবং সম্ভবত একটি পা,ও কেটে ফেলার প্রয়োজন হতে পারে বলে জানায় দুই শিশুর চাচা সৈয়দাবাদ আদর্শ সরকারী মহাবিদ্যালয়ের প্রভাষক তাজুল ইসলাম হানিফ। বিদ্যুৎস্পর্শে দুই ভাইয়ের শরীরের অধিকাংশ পুড়ে গিয়েছিলো বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ১৩ আগষ্ট দুই ভাই খেলতে যায় বাড়ির পাশে একটি তিনতলা ভবনের ছাদে। খেলার ছলে ওই ভবন ঘেঁষে যাওয়া বিদ্যুতের সঞ্চালন লাইনে হাত লেগে যায় শিশু রাহাতের। ছোট ভাইকে ছাড়াতে গিয়ে বড় ভাই রাফি মিয়াও বিদ্যুৎস্পর্শে আহত হয়। এ ঘটনায় দুই ভাই গুরুতর আহত হলে পরিবারের লোকজন দুই শিশুকে উদ্ধার করে প্রথমে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাষ্টিক সার্জারী ইনষ্টিটিউটে স্থানান্তর করেন। সেখানে প্রায় ২৩ দিন পর চিকিৎসীন অবস্থায় মারা যায় ছোট শিশু রাহাত।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares