নবীনগরে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল ৩য় শ্রেণীর ছাত্রী

0 0

প্রতিনিধিঃ উপজেলার লাপাং গ্রামের সামছুল হক সেম্বুর শিশু কন্যা, লাপাং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী নাসরিন আক্তার (৮) এর সাথে একই গ্রামের নূর মোহাম্মদ নূরুলের প্রবাসী ছেলে আক্তার মিয়া (২৪) শুক্রবার বিবাহ হওয়ার কথা থাকলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ.ন.ম নাজিম উদ্দীনের হস্তক্ষেপে গতকাল বৃহস্পতিবার বাল্য বিবাহটি বন্ধ হয়ে যায়।
জানা যায়, উপজেলার লাপাং গ্রামে পূর্বে থেকেই নির্ধারিত বাল্য বিবাহ শুক্রবার (২৩/৮) হওয়ার কথা ছিল। সেই উপলক্ষে বিয়ের সকল প্রস্তুতিও সম্পন্ন করেছে উভয় পরিবার। এরই মধ্যে বিষয়টি ইউএনওর নজরে এলে তা দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেয়া হলে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পায় তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী নাসরিন আক্তার।
এই ব্যাপারে বাল্য বিবাহের কথা স্বীকার করে মেয়ের পিতা সামছুল হক সেম্বু জানান, আমাদের এলাকায় প্রায়ই বাল্য বিবাহ হয়ে থাকে। সেই অনুসারে আমার শালিকার ছেলের সাথে বিবাহ ঠিক কেরছিলাম। কিন্তু ইউএনও স্যারের নির্দেশে তা বন্ধ করে দেই।
ইউএনও নাজিম উদ্দীন বলেন, বাল্য বিবাহের খবর পেয়ে অভিভাবকের সাথে কথা বলে বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares