নবীনগরে ইউপি অফিসে জাতির পিতা ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি নেই..চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

0 0

প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কাইতলা ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সাটানো নেই। এজন্য বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান আবদুল মান্নানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় আইন অমান্য করার অপরাধে শাস্তির সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আ.ন.ম নজিম উদ্দিন তদন্ত কমিটির সুপারিশসহ ব্যবস্থা নিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসককে লিখিতভাবে অবহিত করেছেন।
জানা যায়, গত রোববার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সন্ত্রাস-নাশকতা প্রতিরোধ কমিটির এক বিশেষ সভায় কাইতলা ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান আবদুল মান্নানের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উত্থাপিত হয়। ইউএনও তাৎনিক দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত টিম কাইতলা ইউনিযর পরিষদ অফিসে পাঠান। তদন্ত টিমের সদস্য উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মাহাবুব আলম ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সামছুল ইসলাম শাহন স্থানীয় ওর্যাড মেম্বার সফিকুল ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে পরিষদ অফিসে গিয়ে এ অভিযোগের সত্যতা পান। এ ব্যাপারে কাইতলা ইউনিয়নের মেম্বার সফিকুল ইসলাম বলেন,‘বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিগুলো বিএনপি নেতা চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান নির্বাচিত হবার পর কাগজ দিয়ে মুড়িয়ে আলমিরার ভেতরে রেখে দেন। ছবি দু’টি কখনোই টানাননি’ ।
এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান বলেন, ‘অফিসে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ছিল।’ তবে কেন সাটানো হয়নি এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি নিরব থাকেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আ.ন.ম.নাজিম উদ্দিন বলেন,‘তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। ওই চেযারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রশাসককে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।’

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares