নবীনগরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত-১৫ বাড়িঘর ভাংচুর।

0 9
এস এ রুবেল/  : পূর্ব বিরোধের জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার গৌরনগর গ্রামে গতকাল শনিবার সকালে ফের হামলা সংঘর্ষে দুই গ্রুপের ১৫ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় শাহ-আলম (৩৫) কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও নেয়ামত উল্লাহ (২২)কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ সময় হামলাকারীরা বেশ কয়েকটি বাড়িঘর ভাংচুর করে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়। উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামের সরকার বাড়ির মলাই মিয়া ও একই গ্রামের আজইরা বাড়ির ধন মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে সরকার বাড়ির শাহ-আলম সকালে গৌরনগর বাজারে আসলে আজইরা বাড়ির লোকজন তাকে আটক করে এলো পাতারী কুপিয়ে মারাত্মক জখম করার এক পর্যায়ে তার পায়ের রগ কেটে দেয়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পরলে দুপর ১২টার দিকে দুই গ্রুপ দেশীয় অ¯্র সস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে ৩ ঘন্টা ব্যাপী ধাওয়া পালটা ধাওয়া হামলা সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ১৫জন আহত হয়। আহতদের নবীনগর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
এ ব্যাপারে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জাফর বলেন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে এবং ওই গ্রামে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। উল্লেখ্য গত বুধবার ঐ এলাকা থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র উদ্ধার করে নবীনগর থানা পুলিশ।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares