নবীনগরে জুম্মার নামাজে লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে তর্ক, কিল-ঘুষিতে নিহত ১

0 1
মিঠু সূত্রধর পলাশ,নবীনগর প্রতিনিধি:: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে জুম্মার নামাজে লাইনে দাঁড়ানোকে কেন্দ্র করে কিল-ঘুষিতে সিজল মিয়া (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (৫ মে) জুম্মার নামাজের সময় পৌর এলাকার আলমনগর উত্তরপাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত সিজল মিয়া একই এলাকার মৃত মমতাজ মিয়ার ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরনে জানা যায়,আজ শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর সিজেন মিয়া ও শাহ আলমের মধ্যে মসজিদে নামাজের লাইনে দাড়্নোর তুচ্ছ ঘটনায় কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে শাহ আলম মিয়া সিজিল মিয়াকে পিটিয়ে আহত করেন।
 এসময় স্থানীয় লোকজন আহত সিজিল মিয়াকে উদ্ধার করে দ্রুত নবীনগর সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এ বিষয়ে নিহতের স্ত্রী বলেন,আমরা গরীব হওয়ায় তুচ্ছা ঘটনায় প্রায়ই শাহ আলম আমার স্বামীকে গালিগালাজ করতো। আজ আমার স্বামী মসজিদে নামাজ পড়তে গেলে আবারো গালাগালি করলে তার প্রতিবাদ করায় আমার স্বামীকে সে মেরে ফেলেছে।আমি এর বিচার চাই।
নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, একই এলাকার শাহ আলম ও সিজল মিয়ার মধ্যে পূর্ব বিরোধ ছিল। শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়। এনিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি কিল-ঘুষি হয়েছে। কিল-ঘুষিতে সিজল মিয়া নিহত হয়েছেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার ছোট ভাইকে আটক করা হয়েছে।  বিস্তারিত পরে জানানো হবে

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares