নবীনগরে জালিয়াতি করে প্রবাসীর লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ, অবশেষে গ্রেফতার যুবদল নেতা সাঈদ

0 1

 

মিঠু সূত্রধর পলাশ : নবীনগর সরকারি কলেজ রোড সংলগ্ন বেলজিয়াম ভবনের স্বত্বাধিকারী ও বেলজিয়াম প্রবাসী জাহাঙ্গীর সজলের দেয়া জালিয়াতির মামলায় অবশেষে গ্রেফতার হলেন যুবদল নেতা সাইদুর রহমান সাঈদ। রবিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

জানাযায়, জাহাঙ্গীর সজল সুদূর প্রবাস বেলজিয়ামে ৩৪ বছর যাবৎ অবস্থান করছেন। দেশে না থাকার সুবাদে বেলজিয়াম ভবনটি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ২০১৭ সালের প্রথম দিকে কেয়ারটেকার হিসেবে নিয়োগ দেন যুবদল নেতা সাইদুর রহমান (সাঈদ) কে। দীর্ঘদিন বিশ্বস্ততার সাথে বেলজিয়াম ভবনের দায়িত্ব পালন করেন সাইদুর রহমান সাঈদ। পরিকল্পনা অনুযায়ী সজলের বিশ্বাসও অর্জন করতে সফল হয় সাঈদ। এরি প্রেক্ষিতে ভবনটি রক্ষণাবেক্ষণের কাজের জন্য ইসলামী ব্যাংক নবীনগর শাখার একাধিক খালি সিগন্যাচার করা চেক বেলজিয়াম ভবনের মালিক জাহাঙ্গীর সজল তার হাতে তুলে দিয়ে যান। এই চেকের মাধ্যমে ৫১ লক্ষ ১৭ হাজার টাকা তুলে নেন সাঈদ। এছাড়াও বিভিন্ন অজুহাতে ভবনের বিভিন্ন সামগ্রী কেনার কথা বলে আরো ২৩ লক্ষ টাকা বেলজিয়াম থেকে মানি ট্রান্সফারের মাধ্যমে আনেন। পরবর্তীতে এসব টাকার হিসাব চাইলে গড়িমসি শুরু করে সাঈদ।

এছাড়াও ২০২০এর জুনের প্রথম দিকে সাইদুল হক সাঈদ এর অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে বেলজিয়াম ভবনের অন্যান্য ভাড়াটিয়ারা তাকে ভবন থেকে উচ্ছেদ করতে জাহাঙ্গীর সজলের কাছে অভিযোগ জানান। পরে ভবনটির দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

এসব বিষয়ে ক্ষুদ্ধ হয়ে জাহাঙ্গীর সজলের সিগন্যাচার করা খালি চেক দিয়ে তার বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়া চীফ জুডিসিয়াল আদালতে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন সাইদুর রহমান। এদিকে ৩৩ লক্ষ ২৩ হাজার টাকা হিসাবে গড়মিল পেয়ে হয়ে জাহাঙ্গীর আলম সজল সাঈদ এর বিরুদ্ধে জালিয়াতি মামলা করেন। অবশেষে সেই মামলা চলে যায় পিবিআই এর হাতে। পিবিআই এর দীর্ঘ তদন্ত শেষে মামলা হস্তান্তর করা হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে।

যুবদল নেতার মামলাটি পুরাই ভিত্তিহীন দাবি করে বেলজিয়াম প্রবাসী জাহাঙ্গীর সজল বলেন, সাঈদ ছিলো আমার বাড়ির বিশ্বস্ত একজন কেয়ারটেকার । সে আমার দেশে না থাকা ও সরলতার সুযোগ পেয়ে আমার নামে একটি ভিত্তিহীন মামলা করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং প্রশাসনকে অনুরোধ করবো সঠিক তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে যেন ব্যবস্থা নেয় ।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares