নবীনগরের মনতলা-সীতারামপুর খেয়া ঘাটে নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে পারাপার, কিন্তু দেখার কেউ নেই

0 1
মিঠু সূত্রধর পলাশ, নবীনগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার মনতলা থেকে সীতারামপুর খেয়া ঘাটের নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে পারাপারের অভিযোগ উঠেছে।
গত ১৫ ও ১৬ মার্চ সকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মনতলা ঘাট থেকে সীতারামপুর ঘাটে ছোট্ট একটি নৌকা দিয়ে যাত্রী পাড়ার করছেন একটি পনের বছরে এক কিশোর।
খোয়া পারাপারের নৌকাটিতে প্রায় ৫০ জন
যাত্রী সাথে রয়েছে তিনটি মটরসাইকেল।অনেকটা গাদাগাদি করে কেউ দাড়িয়ে আবার কেউ কোনরকমে বসে আছেন নৌকাতে। কোন প্রকার নিরাপত্তা সামগ্রী না নিয়েই এভাবে দিন রাত যাত্রী পারাপার করছেন খেয়া ঘাটের লোকজন।
স্থানীয়রা জানান, ঘাটের পারাপারের নৌকাটি অনেক ছোট,কিন্তু আমারা যাত্রী অনেক বেশি। অনেকটা বাধ্য হয়েই আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদী পাড় হই। পারাপারের একাধিক নৌকা থাকা দরকার। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি।
এ বিষয়ে নবীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল সিদ্দিক জানান, পারাপারে অতিরিক্ত যাত্রী নেয়া আইনত দন্ডনিয় অপরাধ। বিষয় টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উলেখ্য, গত ২ মার্চ তিতাস নদীর সীতারামপুরের খেয়া ঘাটের পাসে যাত্রী বুঝাই একটি নৌকা ডুবে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। অতিরিক্ত যাত্রী বোঝায়ের কারনে নৌ দুর্ঘটনা চলছেই।
তবু কারোই যেনো কনোপ্রকার ভ্রক্ষেপ নেই ……যেন দেখার কেউ নেই

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares