আশুগঞ্জ যুবলীগের দু’গ্রুপের একই সময় সম্মেলন: প্রশাসনের ১৪৪ ধারা

0 0

ডেস্ক ২৪ ::আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে যুবলীগের দু’গ্রুপের একই সময় বর্ধিত সভা ডাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে আশুগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। গতকাল দুপুর ১২টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত আশুগঞ্জ বাজার, উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গোলচত্বর এলাকায় সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে উপজেলা প্রশাসন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ও শহরের বিভিন্ন এলাকায় সকাল থেকেই বিপুল পরিমাণ পুলিশ, র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। 
দলীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৯শে অক্টোবর কেন্দ্রীয় যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদ আশুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের কমিটি ঘোষণা করেছে। কমিটিতে জিয়া উদ্দিন খন্দকারকে আহ্বায়ক, শাহিন আলম বকশি ও ইলিয়াস আলীকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৩৩ সদস্যের উপজেলা কমিটি ঘোষণা করে। এর পর থেকেই সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনির সিকদার ও নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ইলিয়াস আলীসহ নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির বেশকিছু সদস্য এ কমিটি বাতিলে দাবি জানান। এবং এ দাবিতে তারা সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। এরই প্ররিপেক্ষিতে নবগঠিত উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক জিয়াউদ্দিন খন্দকার ও যুগ্ম আহ্বায়ক শাহিন আলম বকশি গতকাল বিকালে দলীয় কার্যালয়ে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটির সম্মেলন আহ্বান করে ইউনিয়ন কমিটিকে চিঠি দেয়। অপরদিকে, সাবেক কমিটির সহসভাপতি মো. মোশারফ মুন্সী ও সাধারণ সম্পাদক মনির সিকাদারও একই সময় দলীয় কার্যালয়ে দুর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সম্মেলন করার আহ্বান করে ইউনিয়ন কমিটিকে চিঠি দেন। এবং উভয় পক্ষই একই সময়ে দলীয় কার্যালয়ে সম্মেলন করার প্রস্তুতি নেন। এতে করে উত্তেজনা দেখা দেয়ায় উপজেলা প্রশাসন ১৪৪ জারি করে। নবগঠিত উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক জিয়াউদ্দিন খন্দকার জানান, ৪ দিন আগে দুর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগে কমিটিকে আমরা চিঠি দিয়েছি। এবং আমাদের কমিটি বৈধ। কিন্তু প্রসাশন আমাদের দলীয় কার্যালয়ে সম্মেলন করতে দেয়নি। আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সদ্বীপ কুমার সিংহ জানান, উপজেলা যুবলীগের দু’গ্রুপের একই সময় দলীয় কার্যালয়ে দুর্গাপুর ইউনিয়নের সম্মেলন ডাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ার আশঙ্কায় ১৪৪ জারি করা হয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares