আসুন সবাই মিলে একটি আদর্শ ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়ে তুলি-শহীদ পলূ দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা

0 0

২৭ নভেম্বর বৃষ্পতিবার ৩১’তম ঐতিহাসিক জেলা আন্দোলন ও শহীদ পলু দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, আসুন সবাই মিলে একটি আদর্শ ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়ে তুলি। যেখানে কোন প্রকার হিংসা-বিদ্বেষ, খুন-খারাবী, ছিনতাই-চাঁদাবাজি, ইভিটিজিং ও মাদকের ছুঁয়া থাকবেনা। এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি সরকারী মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন এবং তিতাস গ্যাস এন্ড টি.এন্ড.ডি কোম্পানীকে পুনরায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্থাপনের দাবী জানানো হয়। বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টায় স্থানীয় পৌর আধুনিক সুপার মার্কেটের সামনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান আকর্ষন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ বিশিষ্ট সমাজ সেবক প্রবীন ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক মোখলেছুর রহমান। সভায় জেলা উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি মোখলেসুর রহমান জীবনের সভাপতিত্বে ও প্রভাষক শেখ জাহাঙ্গীরের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের সাবেক ভাইস চেয়াম্যান ও জেলা আন্দোলনে কারা নির্যাতিত জননেতা আব্দুল ওয়াহিদ খাঁন লাভলু, কারা নির্যাতিত নেতা প্রদ্যুৎ নাগ, রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের বর্তমান সেক্রেটারী আহসান হাবিব, নাগরিক কমিটির নেতা বিষ্ণু পদ দেব, জেলা উন্নয়ন পরিষদের সাবেক সভাপতি মীর মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, পরিষদ নেতা তোফাজ্জল হোসেন জীবন, আলী আগজার বশির, পরিষদের উপজেলা কমিটির সভাপতি হাজী মিজানুর রহমান, পরিষদ নেতা রাশেদ কবির আখন্দ, দেলোয়ার হোসেন দুলাল, মনি সাহা, বাবুল চৌধূরী, সাংবদিক আবুল হাসনাত অপু, কারুল হাসান নান্ট,ু সাংবাদিক সাজ্জাদ হোসেন মনির, বায়জিদ আহমেদ, প্রমূখ। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, পরিষদের সাবেক সাধারণসম্পাদক আরমান উদ্দিন পলাশ (সাবেক জি.এস)। এর পূর্বে ভোরে বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির ও উপসনালয়ে দোয়া প্রার্থনা, সকাল ৬ টায় কালো ব্যাজ ধারণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, ৮টায় শেরপুরস্থ কবস্থানে হাফেজ মাওলানা মোঃ কাউছারের পরিচালনায় কবর জেয়ারত এবং সকাল ৯টায় শহীদ পলুর মাতাসহ পরিবারের লোজনের সাথে সৌজন্য সক্ষাৎ করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares