রিছাল হত্যা মামলা: আ’লীগ সম্পাদকসহ গ্রেফতার ১৬

0 0

শামীম উন বাছির :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর রিছাল হত্যা মামলার প্রধান আসামি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম সহ ১৬ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলেন- হেলাল মিয়া, সালাল মিয়া, জিয়ার উদ্দিন, জুলফিক মিয়া, ওয়ালিদ মিয়া, রুমান মিয়া, মাসুম মিয়া, রয়েল মিয়া, জুবেল মিয়া, টিটন মিয়া, সাকা মিয়া, সিরাত মিয়া, জাবেদ মিয়া , সফিক মিয়া।

মঙ্গলবার সকালে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার দূর্জয় মোড় থেকে আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।  আসামিদের কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে আনা হয়। আদালতের বিভিন্ন স্থানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পরে বেলা ১১টার দিকে মামলার প্রধান আসামিসহ অন্যান্যদের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাক আহমেদ সাহ্দানী’র আদালতে সোর্পদ করা হলে বিচরক ম্যাজিস্ট্রেট তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের নিদের্শ দেন।

এদিকে আসামিদের গ্রেফতারের খবরে শহরের কান্দিপাড়া থেকে রিছাল হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান-প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহরের কান্দিপাড়া এলাকায় এসে শেষ হয়।
উল্লেখ্য, গত ৩১ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে ব্যবসায়ী রিছাল মিয়া (২৪) শহরের আনন্দ বাজার যাওয়ার পথে খালপাড় হকার্স মার্কেটের দক্ষিণ গেইটে পৌঁছলে পূর্বশত্রুতার জের ধরে আওয়াম লীগ নেতা রফিকের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তাকে ঘেরাও করে  দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বেদম পিটিয়ে এবং কুপিয়ে আহত করে। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ঐ দিন রাত ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রিছাল মিয়া। এ ঘটনার পরের দিন নিহতের পিতা মো. ইয়াছিন মিয়া বাদী হয়ে শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক মিয়াকে প্রধান আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় আরো ১৭জনের নাম উল্লেখসহ ও অজ্ঞাতনামা আরো ৪-৫ জনকে আসামি করা হয়।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares