আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সিরাজুল হকের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী :: কসবায় দোয়া ও শোকসভা অনুষ্ঠিত

0 0

খ.ম.হারুনুর রশীদ ঢালী,কসবা প্রতিনিধি :: জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হত্যা মামলার প্রধান কৌসুলী,প্রখ্যাত আইনজীবী,মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক,আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য,বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর সাবেক সাংসদ সিরাজুল হকের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী (২৮ অক্টোবর) মঙ্গলবার বিকালে অনুষ্ঠিত হয়।

মরহুম এডভোকেট সিরাজুল হক(বাচ্চু মিয়া) ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) নির্বাচনী এলাকার সাংসদ আইন,বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হকের পিতা।

এ উপলক্ষে কসবা উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে দোয়া ও শোকসভার আয়োজন করেছে। বিকালে কসবা উপজেলা মার্কেট চত্বরে অনুষ্ঠিতব্য শোক সভায় কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট আনিসুল হক ভুইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডাচ্-বাংলাদেশ ব্যাংকসামনু তারিজ,এলজিইডি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নির্বাহী প্রকোৗশলী, আইনমন্ত্রীর একান্ত সহকারি এডভোকেট রাশেদুল কায়সার জীবন,কসবা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রুহুল আমিন ভুইয়া বকুল,কসবা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী আজহারুল ইসলাম,কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এম জি হাক্কানী প্রমুখ।কয়েক হাজার নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে দোয়া ও শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

“প্রধান অতিথি বলেন,শেখ হাসিনা সরকার যদি পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকেন তা হলে কসবা-আখাউড়ায় বিপুল পরিমান উন্নয়ন হবে। যা পরিবর্তে আর উন্নয়ন করতে হবে না।”

শোক সভায় মরহুম সিরাজুল হকের আত্মার চির শান্তি কামনা করে আল্লাহÍ কাছে প্রার্থনা করা হয়।

শোক সভার পূর্বে দীর্ঘ ৪০ বছর অবহেলিত কসবা বিজনা নদীর উপর ব্রীজটি প্রায় ৬ কোটি টাকার অর্থায়নে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিঃ ও সড়ক ও জনপথের বাস্তবায়নে দুইলেন বিশিষ্ট ব্রীজটির ভিওি প্রস্তর স্থাপনের শুভু উদ্বোধন করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এমরান উদ্দিন জুয়েল ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares