কসবায় মাহফিলে অতিথি ঘোষনা নিয়ে হামলায় ২০ জন আহত

0 2

রুবেল আহমেদ ॥ কসবায় মাহফিলে অতিথি ঘোষনা না করার জেরে মাহফিলে বাধা ও আয়োজক পক্ষের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। হামলায় উভয় পক্ষের ২০ জন লোক হতাহত হয়েছেন। গত সোমবার মধ্যরাতে উপজেলার মেহারী ইউনিয়নের শিমরাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে ইউপি সদস্যসহ ৮ জনকে আসামী করে কসবা থানায় অভিযোগ দিয়েছেন আয়োজক পক্ষ।

হামলায় আহত শরীফ মিয়া জানান, গত সোমবার রাতে উপজেলার শিমরাইল গ্রামে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেন জমজম এসোসিয়েসন নামে একটি সংগঠন । ওই মাহফিলে অত্র ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেনকে অতিথি ঘোষনা না করায় মনে মনে ক্ষিপ্ত হন তিনি এবং তার লোকজন। এ ঘটনা থেকে প্রথমে মাহফিলের কার্যক্রম বন্ধ করতে বলেন ইউপি সদস্যের লোকজন। তখন আয়োজক পক্ষ এবং ইউপি সদস্যের লোকজন কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন। এসময় উভয় পক্ষের প্রায় ২০ জনের মতো আহত হন। পরে স্থানীয় মুরব্বীদের হস্তক্ষেপে শান্ত হয় দুই পক্ষ। আহতদের রাতেই কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আয়োজক পক্ষের তিনজন বর্তমানে চিকিৎসাধীন। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সকালে বাড়ি চলে যান।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, আমাকে অতিথি না করা বা মাহফিল করতে না দেয়ার অভিযোগ সত্য নয়। মাহফিলে মসজিদের মাইক ব্যবহার না করতে বলায় আয়োজক পক্ষ আমার লোকজনের সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হন। এতে উভয় পক্ষই হতাহত হয়েছেন।
কসবা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares