আখাউড়া সীমান্ত থেকে উদ্ধার হওয়া যুবকের পরিচয় পাওয়া গেছে

0 0

প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্ত থেকে উদ্ধার হওয়া হত্যাকান্ডের শিকার যুবকের পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম প্রিয়তম ঘোষ (১৯)। বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর এলাকার রাধানগরে। গত ১৭ জুলাই আখাউড়ার হীরাপুর সীমান্ত এলাকা থেকে বিএসএফ’র সহযোগিতায় পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
দিকে প্রিয়তমকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে তার পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি তারা বিজিবি ও পুলিশকে অবহিত করেছেন। এ ব্যাপারে আখাউড়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতিও নিয়েছেন তারা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৬ জুলাই রাতে নিখোঁজ হন রাধানগর ঘোষ পাড়ার রাস মোহন ঘোষের ছেলে প্রিয়তম ঘোষ। পরিবারের ধারণা ছিল কেনো কানে হয়তো সে আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়ে বেড়াচ্ছে। প্রিয়তম দীর্ঘদিনেও বাড়িতে না আসায় উদ্বেগ বাড়ে পরিবারে। গত ১৭ জুলাই সীমান্তে লাশ পাওয়া যাওয়ার খবরে তারা সাংবাদিকদের কাছে ছবি দেখেন। পরে একাধিক ছবি সংগ্রহ করে লাশটি প্রিয়তমের বলে নিশ্চিত হন তারা।
প্রিয়তমের ভাই রাকেশ কুমার ঘোষ সাধন অভিযোগ করেন, পূর্বের একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে এক প্রতিবেশী পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছেন। ইতিমধ্যেই ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত কয়েকজনের নামও জানা গেছে। এ বিষয়ে তারা থানায় অভিযোগ দিবেন।
বিজিবি’র ফকিরমোড়া ক্যাম্পের কম্পানী কমান্ডার নায়েক সুবেদার মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, ’আমরা বিষয়টি নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। আজ (রবিবার) বিকেলের মধ্যেই বিএসএফকে এ বিষয়ে চিঠি দেওয়া হবে’।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares