বই পড়ে মানুষ আলোকিত হয়, বিচারপতি আশরাফুল কামাল

0 0

প্রতিনিধি॥ বিচারপতি মোঃ আশরাফুল কামাল বলেছেন, লাইব্রেরী করা বই পড়া খুবই গুরুত্বপূর্ন কাজ। জ্ঞান অর্জনের জন্য লাইব্রেরী খুবই প্রয়োজন। সবাই যদি যার যার গ্রামে কিছু করে তা হলে দেশ উন্নত হয়। ভাল কাজ করলে উৎসাহিত করা উচিত। প্রতিটি মানুষ যদি তার গ্রামের দিকে তাকাত তাহলে বাংলাদেশ গরীব থাকত না। তিনি শনিবার আখাউড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী ধলেশ্বর গ্রামে রাবিয়া খাতুন স্মৃতি পাঠাগারের উদ্ধোধন কালে এক পাঠক সমাবেশে এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বই পড়লে মানুষকে আলোকিত হয়। কিন্তু যে নিজে জানে না সে কিভাবে অন্যকে আলোকিত করবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত আরেক বিচারপতি এবিএম আলতাফ হোসেন বলেছেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে পাঠাগার বিরল। প্রত্যক মানুষকেই গ্রামের জন্য কিছু করতে হবে। কারন গ্রাম হল রুট। অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আপনাদের প্রাপ্ত সুযোগ সুবিধা কাজে লাগালে আকছির এম চৌধুরী চ্যারিটি ট্রাষ্ট এর উদোগ সফল হবে।  বিচারপতি এবিএম আলতাফ হোসেন বলেছেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে পাঠাগার বিরল। প্রত্যক মানুষকেই গ্রামের জন্য কিছু করতে হবে। কারন গ্রাম হল রুট। অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আপনাদের প্রাপ্ত সুযোগ সুবিধা কাজে লাগালে আকছির এম চৌধুরী চ্যারিটি ট্রাষ্ট এর উদোগ সফল হবে। পাঠাগার পরিচালনা কমিটির সভাপতি এডভোকেট আকছির এম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সাংবাদিক দীপক চৌধুরী বাপ্পীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পাঠাগারের সাধারন সম্পাদক শওকত চৌধুরী, ব্রাক্ষনবাড়িয়া প্রেসক্লাব সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রেজা, এডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদ ও শাহাজাদা খাদেম। অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন পিংকি সঙ্গীতাঙ্গনের শিল্পীরা। অনুষ্ঠানের ব্রাক্ষণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন জামি, আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares