“ইলেক্ট্রোমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এর গুরুত্ব ও ভবিষ্যত কর্মপন্থা নির্ধারণ” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

0 0

বিজয়নগর প্রতিনিধিঃ সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, ২২ শে নভেম্বর ২০১৪ ইং তারিখ সকাল ৮.০০ ঘটিকায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর ইলেক্ট্রোমেডিকেল ডিপার্টমেন্টের সকল ছাত্র-ছাত্রীদের আয়োজনে “বাংলাদেশ ইলেক্ট্রো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন” এর কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সংবর্ধনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সংবর্ধনা সভায় “বাংলাদেশ ইলেক্ট্রো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন” এর কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহাসচিব সহ অন্যান্য পদাধিকারীবৃন্দকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ইলেক্ট্রোমেডিকেল ডিপার্টমেন্ট এর উদ্যোগে “ইলেক্ট্রোমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এর গুরুত্ব ও ভবিষ্যত কর্মপন্থা নির্ধারণ”  শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের মাননীয় অধ্যক্ষ প্রকৌশলী প্রদীপ্ত খীসা। প্রধান অতিথি ছিলেন সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত) এবং সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ শওকত হোসেন  , প্রধান বক্তা ও “ইলেক্ট্রোমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এর গুরুত্ব ও ভবিষ্যত কর্মপন্থা নির্ধারণ” এর উপর বিশেষ স্লাইড উপস্থাপন করেন শাখা প্রধান মেডিক্যাল এক্সরে এন্ড  ইমেজিং, নিমিউ এন্ড টিসি,স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, প্রকৌঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন পিএইচডি -ইন-বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ( গবেষণা পার্ট ), প্রধান আকর্ষন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি গবেষণা কেন্দ্র, ড. মোঃ হুমায়ুন কবির  বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন  বাংলাদেশ ইলেকট্রো-মেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন, মহাসচিব মোঃ আহাদুর রহমান কবির। বিশেষ আকর্ষন শুভাজন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিমিউ এন্ড টিসি, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, ,টেকনিক্যাল ম্যানেজার রিপিয়ার প্রকৌঃ দুলাল কৃষ্ণ বিশ্বাস । এছাড়াও বিশেষ অতিথি ছিলেন মেডিটেল কোম্পানী লিমিটেড, সহকারী জেনারেল ম্যানেজার, প্রকৌঃ মোঃ আফছার আলী। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, সহকারী প্রকৌঃ নিমিউ এন্ড টিসি যথাক্রমে মিয়া মোঃ মোর্তুজা হোসেন এবং মোঃ আব্দুল কদ্দুছ , বাংলাদেশ ইলেকট্রো-মেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন, চেয়ারম্যান প্রকৌঃ মোঃ আরিফুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট চীফ ইন্সট্রাক্টর ও বিভাগীয় প্রধান, কম্পিউটার ডিপার্টমেন্ট, মোঃ আবু সাঈম, চীফ ইন্সট্রাক্টর ও বিভাগীয় প্রধান, নন-টেক মোঃ শফিকুল ইসলাম, চীফ ইনস্ট্রাক্টর ও বিভাগীয় প্রধান, ইলেকট্রোমেডিকেল ডিপার্টন্টের প্রকৌঃ মোঃ মনিরুল হক, বিজয়নগর প্রেস ক্লাব সভাপতি আমির মাহমুদ ভূইয়া প্রমুখ । সেমিনার শেষে ইলেকট্রোমেডিক্যাল প্রকৌশল এর উপর দিন ব্যাপি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে পলিটেকনিকের সকল ছাত্র/ছাত্রী , শিক্ষক/শিক্ষিকাগণসহ সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। বাস্তবতার নিরিখে, প্রকৌঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন পিএইচডি -ইন-বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ( গবেষণা পার্ট ) এর বক্তব্য, স্লাইড প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে, উপস্থিত চিকিৎসকবৃন্দ ,বিভিন্ন পেশাজীবি ও সর্বশেষে জেলা সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ মোঃ শওকত হোসেন ইহার গুরুত্ব স্বীকার করেন এবং তিনি তাহার ক্ষমতা অনুযায়ী  বায়োমেডিক্যাল / ইলেক্ট্রোমেডিক্যাল / ক্লিনিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পেশাকে কাজে লাগিয়ে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য মতামত ব্যক্ত করেন। যাহা তাহার ইতোপূর্বে জানা ছিলনা। তিনি বলেন আমি পূর্ব থেকে এর গুরুত্ব বুঝতে পারলে আরো অনেক বেসরকারী হাসপাতাল ও ক্লিনিক সমূহের মালিকদেরকে আমন্ত্রণ জানাতাম। উপস্থিত ক্লিনিক মালিকগণ বায়োমেডিক্যাল / ইলেক্ট্রোমেডিক্যাল / ক্লিনিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পেশাকে কাজে লাগাবেন । তবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় হতে সুনির্দিষ্ট  একটি নীতিমালা প্রনয়ণ করা হলে উল্লেখিত পেশার মাধ্যমে সনাতন স্বাস্থসেবার উন্নয়ন  ঘটবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares