আশুগঞ্জ ফিরোজ মিয়া কলেজে অনর্দিষ্টকালের জন্য ক্লাশ বন্ধ

0 0

প্রতিনিধি : সরকারী বেতন-ভাতা বন্ধ ও শিক্ষক-কর্মচারীদের সাথে অশোভন আচরনের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ফিরোজ মিয়া ডিগ্রী অনির্দিষ্টকালের কর্ম বিরতি পালন শুরু করেছে শিক্ষক-কর্মচারীরা। তাদের আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে কলেজের  শিক্ষার্থীরাও। এ ঘটনার প্রতিবাদে  বৃহস্পতিবার সকালে শিক্ষক-কর্মচারীরা ক্লাশ বন্ধ করে প্রতিবাদ সমাবেশ, শিক্ষার্থী ও প্রশাসনের সাথে মতবিনিময় করেন।

সকাল ১০টায় কলেজ মাঠে অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ আহম্দে উল্লাহ খন্দকার, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান, শিক্ষক প্রতিনিধি শরীফুল ইসলাম মিলন, সহকারি অধ্যাপক মজিবুর রহমান, খন্দকার মামুন উর রশিদ, প্রভাষক এমদাদুল হক, গোলাম মাওলা, আনোয়ার হোসেন, রাশেদ মোশারফ, শামসুল হুদা, মোঃ ইউনুস, অফিস সহকারি গোলাম সারোয়ার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা শিক্ষক কর্মচারিদের আগষ্ট মাসের বেতন শীটে (সরকারী) স্বাক্ষর করলেও কলেজ প্রতিষ্ঠাতা মোঃ ফিরোজ মিয়া ও কতিপয় সদস্যের অসহযোগিতায় ও মৌখিক নির্দেশে ব্যাংক টাকা প্রদানে অস্বীকৃতি জানায়। তাছাড়া দীর্ঘদিন ধরে ফিরোজ মিয়া ও তার পরিবারের সদস্যরা শিক্ষক-কর্মচারিদের সাথে দূর্ব্যবহার ও কলেজের টাকা উন্নয়নের নাম করে নিজেরা নিয়ে যাচ্ছেন।
সমাবেশে বলা হয় শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন সংক্রান্ত জটিলতা নিরসন, প্রতিষ্ঠাতার অন্যায় প্রভাব ও দূর্নীতি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত কাশ বন্ধ থকবে। এ ক্ষেত্রে তারা শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

দুপুর ১২টায়  শিক্ষক-কর্মচারীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের সাথে তাদের সমস্যাদি নিয়ে আলোচনা করেন এবং এক্ষেত্রে প্রশাসনের  হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
উল্লেখ্য গত ২ মাস ধরে কলেজের ৫৪জন শিক্ষক-কর্মচারীর সরকারী বেতন বন্ধ রয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares