আশুগঞ্জের লালপুরে দেড় একর দেবোত্তর সম্পত্তি দখল, প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের হামলায় এক বৃদ্ধ খুন

0 0


প্রতিনিধি ॥ ব্রাক্ষনবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার লালপুরে দেবোত্তর ও শ্বশানের সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় যোগেস দেবনাথ নামে এক বৃদ্ধ খুন হয়েছে। গুরত্বর আহত হয়েছে নিহতের পরিবারের আরো ৬জন।আহতরা জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।এই নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা ও থমথমে ভাব বিরাজ করছে।দেবোত্তর ও শ্বশানের সম্পত্তি দখলকারী ও হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতারে দাবীতে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো লালপুর।পুলিশ এখনো কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি।পুলিশের রহস্যজনক ভুমিকা নিয়ে এলাকাবাসী ক্ষুব্দ ।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শি সূত্রে জানাযায়, উপজেলার লালপুর নাথপাড়ায় প্রায় শত বছর যাবত দেড় একর ভুমি (দেবোত্তর সম্পত্তি) দেবনাথ সম্প্রদায়ের লোকজন শ্বশান ও মন্দিরের কাজে ব্যবহার করে আসছিল।দীর্ঘদিন যাবত প্রতিবেশী সুধীর দেবনাথ দখল করে রখেছে। গত এক যুগে পর্যায়ক্রমে এই দেবোত্তর সম্পত্তি অধিকাংশই দখল করে নেয় দেবনাথ সম্প্রদায়েরই সুধীর দেবনাথের নেতৃত্বে একটি প্রভাবশালী মহল।এতে সংক্ষোব্দ হয়ে দেবনাথ সম্প্রদায়ের পক্ষে যোগেস দেবনাথ অবৈধ ভাবে দখলকৃত সম্পত্তি উদ্বারের লক্ষ্যে আদালতে মামলা দায়ের করেন।এতে ক্ষুব্দ হয়ে অবৈধ দখলবাজ সুধীর দেবনাথের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধদল দেশীয় অস্ত্রস্বস্ত্র নিয়ে গত ১৯ জুন গভীর রাতে যোগেশ দেবনাথের বাড়ীতে হামলা চালায় এবং তাকেসহ তার পরিবারের লোকজনকে কুপিয়ে গুরত্বর আহত করে। গুরত্বর আহত অবস্থায় যোগেস দেবনাথকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গত ২৩ জুন রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহতের লাশ গত সোমবার বিকালে নিজ বাড়ীতে পৌছলে হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে এলাকায় প্রতিবাদের ঝড় উঠে। বর্তমানে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।এদিকে মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সুধীর দেবনাথসহ তার পক্ষের লোকজন গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যায়।বর্তমানে সুধীর দেবনাথের বাড়ী ভারতের লোকজন পাহাড়া দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব্যাপারে সধীর দেবনাথের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এদিকে নিহতের ভাতিজা কালিপ্রদ দেবনাথ বাদী হয়ে হামলার ঘটনায় গত ২০ জুন আশুগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ রহস্যজনক কারণে মামলাটি রজু করতে টালবাহানা করে। পরবর্তিতে গত ২২জুন প্রতিপক্ষের একটি মামলা রুজু করার পর তাদের মামলাটি রুজু করে বলে বাদীর অভিযোগ।এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ গোলাম ফারুকের সাথে যোগাযোগ করেলে তিনি জানান উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনায় থানায় ২টি মামলা থানায় রুজু করা হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares