আশুগঞ্জে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২০

0 0

সুমন নূর : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের আড়াইসিধা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি ও প্রধান শিকের পদ নিয়ে দন্দ্বের জের ধরে মাধর গোষ্ঠী ও মোল্লা গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন। রোববার বিকেল ৫টার দিকে মাধর গোষ্ঠী ও মোল্লা গোষ্ঠীর লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির জের ধরে উভয়পরে লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে নিহত সাইফুল ইসলাম (২৫) আড়াইসিধা গ্রামের মাধর গোষ্ঠীর সোহরাব হোসেনের ছেলে। সাইফুল আশুগঞ্জের ফিরোজ মিয়া ডিগ্রি কলেজের সম্মান(সমাজ বিজ্ঞান) প্রথম বর্ষের ছাত্র।

এলাকাবাসি জানায়, আড়াইসিধা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি ও প্রধান শিক পদ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দুই গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের পর আশুগঞ্জ থানা পুলিশ ও দাঙ্গা পুলিশ চেষ্টা চালিয়েও সংঘর্ষ থামাতে ব্যর্থ হয়। সংঘর্ষ চলাকালে আড়াইসিধা বাজারের বেশ কয়েকটি দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়।

সংঘর্ষে আহতদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও জেলা সদর হাসপাতালসহ স্থানীয় বিভিন্ন বেসরকারি কিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পরে আশুগঞ্জ থানা পুলিশ ও অতিরিক্ত দাঙ্গা পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে সংঘর্ষ থামায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে অতিরিক্ত দাঙ্গা পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares