নাসিরনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে অপহরণ নাটক অতঃপর উদ্ধার

0 0

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া(প্রতিনিধি)ঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ঘুজিয়াখাই গ্রামের মামলার বাদীনিকে লুকিয়ে রেখে ২৬ জনের নামে অপরহণ মামলা দায়েরের পর বাদীনিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এলাকাবাসী প্রত্যক্ষদুশী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে চাতলপাড় ইউনিয়নের ঘুজিয়াখাই গ্রামের কালাম,  আলামিন ও অহিদ মিয়ার মাঝে জায়গা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ নারী নির্যাতন, এসিড, ধর্ষন,চাঁদাবাজি ও অপহরণের মত একাধিক মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। ১৬ জুলাই ২০১৪ তারিখে খুশনাহার বেগম, স্বামীমৃত আব্দুর রশিদ বাদী হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে কালাম ও আলামিনের  নামে অন্য একটি মামলা রুজু করে। মামলার পর তার ভাসুর অহিদ মিয়াসহ তার লোকজন বাদীনি খুশনাহারকে রাতের অন্ধকারে অন্যত্র সড়িয়ে দেয়। পরে বাদীনি খুশনাহারকে অপরহণ ও গুম করা হয়েছে বলে তার ভাসুর অহিদ মিয়া বাদী হয়ে ২৬ জনের নামে অপহরণ মামলা রুজু করে। মামলার পর থেকে বাদীনিকে খুঁজতে থাকে এলাকার লোকজন ও পুলিশ। অবশেষে শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চাতলপাড় পুলিশ পাড়ির পরিদর্শক কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ভৈরব থেকে অপহরণ হওয়া খুশনাহারকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। এ বিষয়ে জাহাঙ্গীর আলমের সাথে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন উদ্ধার হওয়া খুশনাহারকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares