নাসির নগর প্রেসক্লাব ২৪ ঘন্টাই থাকে তালাবন্ধ

0 0

নাসিরনগর প্রেসক্লাব যেখানে অনিয়মই নিয়ম ।


নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধিঃ সাংবাদিকদের বলা হয় জাতির বিবেক। আর সংবাদ পত্রকে বলা হয় সমাজের দর্পন বা আয়না ।মানুষ যেমন আযনার সামনে দাড়িয়ে নিজের চেহারা দেখতে পায় তেমনই পত্রিকার মাধ্যমে দেশ বিদেশের খবর জানতে পায় ।সাংবাদিকরা নিজের জীবন  বাজি রেখে দেশ ও জাতির কল্যানে কাজ করে থাকে ।জাতির বিবেক সাংবাদিকরা যেখানে বসে সংবাদ লিখে বা পরিবেশন করে তাকে প্রেসক্লাব বা সাংবাদিকদের বসার স্থান বলা হয় । তেমনি দেশের প্রত্যেকটি  উপজেলা ,জেলা, বিভাগীয় শহর এবং কেন্দ্রিয় পর্য্যায়ে রয়েছে প্রেসক্লাব বা সাংবাদিকদের বসার স্থান। এ সমস্ত প্রেসক্লাব পরিচালনার জন্য রয়েছে বৈধ সাংবাদিকদের একটি পরিচালনা কমিটি ।
সারা দেশের ন্যায় নাসির নগর উপজেলা ও একটি প্রেসক্লাব রয়েছে যেটি ২৪ ঘন্টাই থাকে তালা ঝুলানো। ক্লাবের পদধারী সভাপতি থাকেন লাইব্রেরী ব্যবসা আর আর রাজনীতি নিয়ে । সাধারন সম্পাদক পদধারী থাকে বীমা ব্যবসা নিয়ে। সত্যিকারের সাংবাদিকের পরিবর্তে কয়েকজন পদধারী বৈধ অবৈধ  সাংবাদিকদেরকে নিয়ে গঠন করা হয়েছে নাসির নগর উপজেলা প্রেস ক্লাব কমিটি, আর সত্যিকারের  সাংবাদিকদের রাখা হয়েছে ক্লাবের বাহিরে । সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক একে অপরের নিকটাত্মীয়।   অনেকই আবার বলছে সেটি হচ্ছে ভাই ভাই কোং লিঃ । ক্লাবটি দীর্ঘদিন যাবৎ একটি নিকটাত্মীয় গ্রুপ দখলে রেখেছে বলে হ্মোভ প্রকাশ করেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি সুজিত কুমার চক্রবর্তী ও সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ আসমত আলী ।তারা আরও  জানান, নিয়ম অনুসারে প্রতি দুই বছর পর পর ক্লাবের নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলে ও ৬ বছর আগে  ২০০৭ সালের ১৪নভেম্বর নির্বাচন হয়েছিল । উক্ত নির্বাচনে  বড়  ভাই সভাপতি ও ছোট ভাই সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত ও আরেক ভাই সদস্য নির্বাচিত  হন। এরপর কেউ আর কোনদিন নির্বাচনের কথা মুখে আনেনি । এ পর্যন্ত  বার বার  তাগাদা দিলে ও কোন মাসিক মিটিংয়েও বসার প্রয়োজন মনে করছেন না  তারা ।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares