বেহাল দশায় নাসিরনগর – দেখার কেউ নেই ?

0 0

প্রতিনিধি ঃ  ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার পল্লীর প্রত্যন্ত অঞ্চল নাসিরনগর উপজেলা । নদ নদী হওয়ার বিল ও কৃষি বিধৌত অঞ্চল বলে খ্যাত এ উপজেলা ।এ উপজেলার জরাজীর্ণ রাস্তাঘাট বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে । নাসিরনগরের  অনেক রাস্তা ঘাট দেখলে  মনে হয় যেমন হাল চাষ করা কৃষি জমি। দীর্ঘদিন যাবত মেরামত না করায় নাসির নগর উপজেলার সাথে গুণিয়াউক ও পার্শ্ববর্তী উপজেলা মাধপুরের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা অনুপযোগী হয়ে পড়েছে । ফলে পথচারী যাত্রী সাধারনকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে । ঘটছে ঘনঘন সড়ক দুর্ঘটনা ।বর্তমানে নাসিরনগর গুনিয়াউক ,নাসিরনগর  চৈয়ারকুড়ি ,মাধবপুর  সহ পূর্বভাগের সাথে সড়কে যানবাহন চলাচল ঝুকিপূর্ণহয়ে দাড়িয়েছে ।এ তিনটি  রাস্তায় দিয়ে  প্রতিদিন শতশত যানবাহনে হাজার হাজার যাত্রী চলাচল  করলে ও র্দীঘ প্রায় ২২ কিঃ মিঃ  এ রাস্তায়  কার্পেটিং উঠে মাটি ভেঙ্গে গিয়ে বড়বড় গর্ত ও খানাখন্দের  সৃষ্টি হয়েছে । এসমস্ত রাস্তা দিয়ে টেম্পু , অটোরিক্সা ,সি,এন,জি,মোটর সাইকেল ,মাইক্রোবাস ,প্রাইভেটকার ,ট্রাক চলাচল করতে গিয়ে অনেক সময় উল্টে খাদেপড়ে
দূর্ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা বৃব্দি পেলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপরে টনকনড়েনি । এলাকাবাসী জানায় নাসিরনগর উপজেলার গোকর্ণ , গুনিয়াউক , হরিপুর ,পূর্বভাগ ইউনিয়নের জনগনের এল জি ই ডি বিভাগের এ-রাস্তাগুলি। বর্তমানে এ সমস্ত রাস্তায় স্থানীয় জনগনের উদ্যোগে গর্ত ও ভাঙ্গা গুলোতে কংক্রিট আর  বস্তা ভর্তি মাটি দিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। বিগত বন্যায় এ সমস্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে ভাঙ্গনের ফলে রাস্তাগুলো সরু হয়ে পরেছে । বন্যা পরবর্তী দীর্ঘ দিনে ও এ রাস্তাগুলো মেরামত  বা পূণঃ সংস্কার করা হয়নি । তবে সবচেয়ে বেশী ভগ্নদশা পরিনত হয়েছে নাসিরনগর গুণিয়উক , লীপুর ,পূর্বভাগ ,হরিপুর ,হরিণবের , শ্যামপুর চৈয়ারকুড়ি ,নূরপুর রাস্তাগুলো । প্রতিদিন  দুর্ঘটনায়র ঝুকিনিয়ে এই সমস্ত রাস্তায় চলছে যানবাহন । বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের আধুনিক ডিজিটাল বাংলাদেশে জেলার এ উপজেলা রাস্তা ঘাট গুলো নিতান্তই দুঃখ জনক। সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী এ উপজেলাকে আধুনিক ডিজিটাল উপজেলায় পরিনত করতে হলে এ রাস্তাগুলো মেরামতের পাশাপশি তুল্লাপাড়া বেরুইন কান্দিতে  প্রায়   কিঃ মিঃ , কুন্ডা-ভলাকুট  ৫ কিঃ মিঃ , দাঁতমন্ডল  টেকানগর ২ কিঃ মিঃ, ভলাকুট মহিষবেড় ,৬ কিঃ মিঃ নাসির পুর বেরুইন, ২ কিঃ মিঃ , দাঁতমন্ডল  কুলিকুন্ডা, ১ কিঃ মিঃ,  বিটুই  তুল্লাপাড়া ২ কিঃ মিঃ, ভাগী বিটুই ২ কিঃ মিঃ বাগী কাহেতুরা ২ কিঃ মিঃ কাহেতুরা সাধন কুটুই  ২ কিঃ মিঃ, কুটুই র্দূগাপুর ৩ কিঃ মিঃ, ভলাকুট কান্দি -নাসির পুর
কিঃ মিঃ, ভলাকুট -দূগাপুর ৩ কিঃ মিঃ,কুলিকুন্ড-ফুলপুর   কিঃ মিঃ,কুন্ডা  মহিষবেড় ২কিঃ মিঃ মহিষবেড় ধানতলিয়া ৩ কিঃ মিঃ, ধানতলিয়া  বড়নগর কাকৈরা ৩ কিঃ মিঃ, কাকৈরা গুজিয়াখাইল ১ কিঃ মিঃ, চাতলপাড় বড়নগর ৩ কিঃ মিঃ, চাতলপাড় ধানতলিয়া   কিঃ মিঃ, কাহেতুরা বেরুইন ২ কিঃমিঃ, তুল্লাপাড়া বাজার হইতে নূরপুর বাজার ৩ কিঃ মিঃ, গোকর্ণ হইতে মছলন্দপুর প্রায় ৩ কিঃ মিঃ রাস্তা ও বাধ নিমার্ণ করা হইলে এ উপজেলা ডিজিটাল বাংলাদেশের শ্লোগান বাস্তবায়ন হইবে। তাতে নাসিরনগর উপজেলার প্রায় ৮০ বর্গ কিঃ মিঃ এলাকার সেচ কার্য ভূগর্ভের পানি ছাড়া নদী র পানিতে করা যাবে। উপজেলার কৃষি বনায়ন, গভাদি পশু ও গাভী পালন কয়েকগুন বেড়ে যাবে। উপজেলার কৃষিতে আশাতিত ফলন উৎপাদন সম্ভব হবে। ভূমির ক্রয়তির অপো ফসল উৎপাদন বেড়ে দ্বিগুনে পরিণত হবে। মেঘনা লংঘন, বলভদ্র ও তিতাসে পতিত কাল সমূহের মোহনায় স্লুইস গেইট নির্মাণ করা হলে সমস্ত উপজেলার  সেচকার্য নদীর পানি দ্বারা করাযাবে । 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares