সরাইলে দু’গোষ্ঠীর সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত অর্ধশত

0 0

 


শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দু’গোষ্ঠীর সংঘর্ষে মহিলাসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। এসময় ৮/১০টি বাড়ি ঘর ব্যাপক ভাংচুর চালায় দাঙ্গাবাজরা। জানা যায়, উপজেলার পাকশিমূল ইউনিয়নের পরমানন্দপুর গ্রামের নগর বাড়ির উমর কাদির ও ভূলু বাড়ির অহিদ মিয়ার মধ্যে শুক্রবার রাতে বাজারের চায়ের দোকানে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে সকাল সাড়ে ৯টায় উভয় গোষ্ঠীর লোকজন রামদা, বল্লম, টেঁটাসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় আড়াই ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে মহিলাসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়। আহতদের মধ্যে সারেদ আলী, সৈয়দ হোসেন, কালাম মিয়া, কিতাব আলী, রুবেল হোসেন, মালেক মিয়া, মনোয়ারা বেগম, হোসেন মিয়া, আব্দুর রশিদ, শামসুল হক, আব্দুল হামিদ, আব্দুল কাইয়ুম, উমর আলী, আব্দুল ইজজ, মোঃ উজ্জল মিয়া, সফর আলী, খোদেজা বেগম, মনির হোসেন, ছালেক মিয়া, ওবায়ুদল্লাহ, জলুস আমিন, শওকত হোসেন, ফারুক মিয়াকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি ও অন্যদের সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সংঘর্ষের সময় উভয়পক্ষের দাঙ্গাবাজরা ৮/১০টি বাড়িঘর ব্যাপক ভাংচুর চালায়। খবর পেয়ে অরুয়াইল ফাঁড়ি পুলিশ ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী আরশাদ জানান, পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। কোন পক্ষই মামলা দায়ের করেনি।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares