সরকারি রাস্তা দখলে নিতে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

0 0
সরাইল প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার কালীকচ্ছ ইউনিয়নের নন্দীপাড়ায় কয়েকজন দুস্কৃতিকারি গ্রামবাসীর চলাচলের একটি সরকারি রাস্তা দখলে নেওয়ার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে নিরীহ লোকজনকে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।   গ্রামবাসী সুত্র জানায়, কালীকচ্ছ ইউনিয়নের নন্দীপাড়া গ্রামের ৩৮৯১ দাগের চার শতাংশ একটি রাস্তার জায়গা একই গ্রামের রাকেশ দেবের (৫০) সহায়তায় পার্শবর্তী নোয়াগাঁও ইউনিয়নের মোতাইদ বাড়ির মো. ফারুক মোতাইদ (৪৫) কয়েক মাস আগে দখলে নেওয়ার চেষ্টা করে। গ্রামবাসী প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন পরিষদের কাছে লিখিত আবেদন করেন। এক পর্যায়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও  গ্রামবাসীর প্রতিরোধে তারা ব্যর্থ হয়। এর পর তাঁরা গ্রামের নিরীহ শামীম মিয়া (৩৫),শাহীন মিয়া (৩৩), লক্ষণ শীল (৪০), নান্টু দেব (৩৮) ও মনুজ দেব (৩০) সহ ৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় চুরি ও লুটপাটের অভিযোগে একাধিক মামলা দায়ের করে হয়রানি করতে থাকে। বিষয়টি নিয়ে নাড়াচাড়া করলে হত্যার হুমকিও প্রদান করে। একই সাথে তারা গুম ও নারী নির্যাতন মামলা দায়েরের হুমকি দিয়ে আসছে। গতকাল সোমবার সরেজমিনে গেলে গ্রামের বাসিন্দা প্রদ্বীপ দেব (৫৫),হিমাংশু রঞ্জন দেব (৮০), ছবি রাণী দেব (৭০) সহ অনেকেই জানান এটি আমরা জন্মের পর থেকে রাস্তা হিসেবে ব্যবহার করে আসছি। এখন হঠাৎ করে একটি চক্র রাস্তাটি তাদের দাবি করে দখলে নিতে চাইছে। রাস্তাটি যদি তাদের দখলে নিয়ে নেয় তবে গ্রামের অন্তত ২০ টি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে যাবে। রাকেশ দেব ও ফারুক মোতাইদ বলেন,আমরা ক্রয় সুত্রে ৩৮৯০ নং দাগের জমির মালিক। এর পাশের জমিটি (৩৮৯১ দাগের) গ্রামবাসী দীর্ঘ দিন ধরে পায়ে চলার পথ হিসেবে ব্যবহার করে আসলে ও এর দখল আমাদের পূর্ববর্তী মালিকেরই ছিল। এখন আমরা তাদেরকে এমনিতেই দিয়ে দিতে পারি না।
ইউপি চেয়ারম্যান তকদির হোসেন বলেন, এটি পরিষদের দীর্ঘ দিনের পুরনো রাস্তা । গ্রামের কিছু লোক এটি দখলে নিতে চেয়েছিল।তাই আমরা গিয়ে এটি উদ্ধার করেছি।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares