সরাইলে মহাসড়ক কসাইদের দখলে

0 0
সরাইল ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥ ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল বিশ্বরোড মোড়ে পূর্ব পাশের মহাসড়কটি দীর্ঘদিন যাবত দখল করে রেখেছে স্থানীয় কসাইরা। হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির মাত্র ১শত গজ দূরে নিয়মিত তারা মহাসড়কের উপর পশু জবাই ও মাংশ কাটার কাজ করছে। পশুর রক্তে ভেসে যাচ্ছে মহাসড়ক। রক্ত পঁচা দূর্গন্ধে পথচারী  যাত্রীদের ভমি হলেও কসাইদের কিছু যায় আসে না। মাথা ব্যাথা নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। সওজের জায়গার টিনের তৈরী শেডের ভাড়া নিচ্ছেন স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তি। প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে পেশী শক্তি প্রয়োগ করেই তারা এমন গর্হিত কাজ করছে বলে জানিয়েছেন যাত্রী ও পথচারীরা।  সাধারণ লোকজন প্রতিদিন ভোগান্তির শিকার হলেও রহস্যজনক কারনে কর্তৃপক্ষ নিরব।
অতি সম্প্রতি সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল সাড়ে সাতটা। মহাসড়কের উপর মহিষ ও গরু জবাইয়ের প্রতিযোগীতা চলছে। রক্ত গড়িয়ে যাচ্ছে সড়কের উপর দিয়ে। নিয়ম থাকলেও এখানকার কসাইরা পশু জবাইয়ের পূর্বে কোন ডাক্তারী পরীক্ষা করেন না। বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলছে। রক্তের উপর দিয়েই হেঁটে এসে গাড়িতে উঠছে যাত্রীরা। অসহায় পথচারীরা কসাইদের তান্ডব দেখছে। ইচ্ছা থাকা সত্বেও দূর্ব্যবহারের ভয়ে প্রতিবাদ করতে পারছেন না। ইচ্ছেমত পশুর চামড়া সড়কের উপরেই আলাদা করছে। জবাইকৃত পশুর শরীর থেকে বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ টুকরো টুকরো করছে। পরে মাংশ গুলো সওজের জায়গায় অবৈধ ভাবে গড়ে উঠা  শেডে নিয়ে বিক্রি করছে তারা। সওজের জায়গায় অবৈধ ভাবে গড়ে  উঠা শেড প্রশাসন ঘুরিয়ে দিয়েছিল। তারা আবার সেই জায়গায় শেড তৈরী করেছে।কসাইদের বাড়ি বিশ্বরোড মোড়ের পাশে খাটিহাতা ও বেতবাড়িয়া গ্রামে। তারা প্রতিদিনই মহাসড়কের উপর পশু জবাই করছে। সড়কের পশ্চিম পাশে তারা নিয়মিত গরুর বিষ্টা ফেলে যাচ্ছে। ফলে এ গুলো পঁেচ ব্যাপক দূর্গন্ধ ছড়াতে থাকে। পরিবেশ হচ্ছে দূষিত। অনেককে নাকে রুমাল চেঁপে পথ চলতে দেখা যায়। কসাইদের এ বেআইনী কাজের প্রতিবাদ করে অনেকে হয়েছেন লাঞ্ছিত। আশ পাশের দোকানদাররাও ভয়ে কিছু বলেন না। বিশ্বরোড পুলিশ ফাঁড়ির সার্জেন্ট নূর হায়দার তালুকদার বলেন, এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। মহাসড়কের উপর পশু জবাইয়ের বিষয়টি দেখবে পরিবেশ অধিদপ্তর।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares