ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

0 0

প্রতিনিধি::গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে হত্যার পর লাশ ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন। তবে পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না। নিহত গৃহবধূ হলেন, পৌর এলাকার হালদার পাড়ার পারভেজুর রহমানের স্ত্রী ইভা আক্তার (১৮)। তিনি এক কন্যা সন্তানের জননী ও তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন তবে এ ঘটনায় বিকেল নাগাদ কোনো মামলা হয়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা সদর হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সকালে হালদার পাড়ায় পারভেজুর রহমানের বাড়িতে ঝগড়া হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই তারা জানতে পারেন, ঐ গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। প্রতিবেশী ও স্বামী মিলে ঐ গৃহবধূকে পাশের কমফোর্ট হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ইভা আক্তারের মা মনোয়ারা বেগম অভিযোগ করেন, তার মেয়েকে পিটিয়ে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়া হচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তার মেয়ে ফোনে তাকে বাড়িতে আসতে বলে। এর কিছুক্ষণ পরই তারা মৃত্যু সংবাদ পান। স্বামী ও ননদ কনক মিলে এ হত্যাকা- ঘটিয়েছে। সদর হাসপাতালে অবস্থানরত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আলী আহসান কাউছার বলেন, আমরা মেয়েটিকে মৃত অবস্থায় দেখতে পেয়েছি। তবে স্বামীর বাড়ির লোকজন বলেছে সে আত্মহত্যা করেছে। আমি ফোনে মেয়ের বাড়ির লোকজনকে খবরটি জানিয়ে দেই। এরপর থেকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার এসআই মো. মাসুদ রানা জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। সুরতহাল করার সময় শুধু গলায় দাগ দেখা গেছে। গৃহবধূর পরিবারকে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares