রিসাল পাঠান হত্যাকান্ড : আওয়ামীলীগ নেতা রফিককে দল থেকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন

0 0

শামীম উন বাছির ::ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কান্দিপাড়ার রিছাল পাঠান-(২৪) নামক যুবককে হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলামকে দল থেকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী ও আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা।
গতকাল বুধবার সকাল ১১ টায় বিক্ষুব্ধ লোকজন জেলা পরিষদের সামনে শহরের প্রধান সড়ক টি.এ.রোডের দু’পাশে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করে।
মানববন্ধনে কান্দিপাড়ার শত শত মহিলা-পুরুষ এবং আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মী অংশ নেয়। মানববন্ধন চলাকালে বিক্ষুব্ধ লোকজন রিছাল পাঠানকে হত্যাকান্ডের দায়ে শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলামকে দল থেকে বহিষ্কারসহ তার সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।
এসময় আন্দোলনকারিরা তার ফাঁসির দাবি জানিয়ে শ্লে¬াগান দেয়।
মানববন্ধনে অংশ নেওয়া জেলা মৎস্যজীবি লীগের সহ-সভাপতি ও কান্দিপাড়ার বাসিন্দা কাছন মিয়া বলেন, আমরা রফিকের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি চাই এবং তাকে দল থেকে বহিস্কারের জন্যই আমরা আন্দোলন করেছি। আমরা এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামীলীগের নীতিনির্ধারকদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। পরে আন্দোলনকারীরা রফিককে দল থেকে বহিষ্কারের জন্য  স্থানীয় সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।
উল্লেখ্য, গত ১ নভেম্বর শহরের কান্দিপাড়ার ইয়াছিন পাঠানের ছেলে রিছাল পাঠান নামের এক যুবককে ঘর থেকে ডেকে এনে নির্মম ভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে ১৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে নিহতের বাবা ইয়াছিন পাঠান। এ ঘটনায় গত ১১ নভেম্বর রফিকুল ইসলামসহ ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares