ফলোআপ :: রাব্বির চোখে অস্ত্রোপচার, তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন,কারণ দর্শাতে নোটিশ

0 0


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিয়াজ মুহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকের ছোড়া কলমে ছাত্রের চোখ আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ার ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির এক সভায় ওই কমিটি গঠন করা হয়। একই সঙ্গে অভিযুক্ত শিক্ষককে কারণ দর্শানোর চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয় সভায়। তবে এ ঘটনায় সোমবার বিকেল নাগাদ থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের হয় নি।
এদিকে আহত ছাত্র মো. গোলাম রাব্বি চোখে অস্ত্রোপচার করা হলেও শঙ্কা এখনো কাটেনি। চিকিৎসকরা রাব্বির স্বজনদেরকে জানিয়েছেন, তার চোখের অবস্থান সম্পর্কে জানতে আগামীকাল  পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। রাব্বির জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন পরিবারের লোকজন।
ঢাকায় রাব্বির সঙ্গে থাকা তার মামা মো. শাহজাহান মিয়া জানান, অস্ত্রোপচার করা হলেও চোখ আগের অবস্থানে ফিরে যাবে কি-না সে বিষয়টি চিকিৎসকরাও নিশ্চিত করে বলতে পারে নি। আমরা এ নিয়ে বেশ শঙ্কায় আছি। আসন্ন জেএসসি পরীক্ষায় তার অংশ নেওয়া হবে না। রাব্বি কর্ণিয়ায় আঘাত পেয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছে। যে শিক্ষক এ ঘটনা ঘটিয়েছে আমরা তার বিচার চাই।

এদিকে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। কমিটির সদস্যরা হলেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মো. ফজল আহমেদ, বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. কামাল আহমেদ, কেশব লাল দেবনাথ। তদন্ত কমিটির দুই সদস্য ওই ছাত্রকে দেখতে সোমবার ঢাকায় যান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ওই ছাত্রটির বিষয়ে নিয়মিত খোঁজ রাখছি। দুই শিক্ষক তাকে দেখতে ঢাকায় গেছেন। অভিযুক্ত শিক্ষকের ঠিকানায় তিন দিনের মধ্যে কারণ দর্শাতে নোটিশ পাঠানো হয়েছে’।

গত রবিবার দুপুরে জেএসসি মডেল টেস্ট চলাকালে শিক্ষক সুব্রত সরকারের ছোড়া কলমে গোলাম রাব্বির বাম চোখ আঘাত প্রাপ্ত হয়। প্রথমে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসা দেওয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সেখানে সোমবার দুপুরে রাব্বির অস্ত্রোপচার করা হয়।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares