সংস্কৃতির চর্চা সাম্রাজ্যবাদ,সাম্প্রদায়িকতা ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে টিকে থাকার শিক্ষা দেয়.. আবুল মকসুদ

0 0

মাসুক হৃদয় : শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির চর্চা সবসময় সাম্রাজ্যবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে টিকে থাকার শিক্ষা দেয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাহিত্য একাডেমি ৩০ বছর যাবৎ সংস্কৃতি চর্চার মতো মহান কাজটি করে যাচ্ছে। এটি যে কত বড় কাজ- সংস্কৃতির বিষয়ে ইতিহাস লিখতে হলে অবশ্যই তার উল্লেখ করতে হবে। সাহিত্য একাডেমির মতো এমন আরো দশটি প্রতিষ্ঠান যদি দেশে থাকতো তাহলে মৌলবাদি, যুদ্ধাপরাধী ও জামায়াত দেশে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতো না।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাহিত্য একাডেমির তিন দিন ব্যাপী ৩০ বছর পূর্তি উৎসবের সমাপনি দিনের আলোচনায় প্রধান আলোচক হিসেবে সৈয়দ আবুল মকসুদ এসব কথা বলেন।
শনিবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির মঞ্চে সমাপনি দিনে আলোচনা সভা ও গুণী সাহিত্য অনুরাগীদের আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।  
গত ২৮ ফেব্র“য়ারি বণার্ঢ্য শোভাযাত্রা, লাঠিখেলা ও গুণী সাহিত্য অনুরাগীদের সম্মাননা প্রদানের মধ্য দিয়ে একাডেমির তিন দিন ব্যাপী ৩০ বছর পূর্তি উৎসব পালন করা হয়।
একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংবাদিক, গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ এবং কবি সাজ্জাদ শরীফকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।  

অনুষ্ঠানে সাংবাদিক, গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদকে আজীবন সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাহিত্য একাডেমির উপদেষ্টা আইনজীবি আব্দুস সামাদ। কবি সাজ্জাদ শরীফকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাহিত্য একাডেমির পক্ষে আজীবন সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন।

সাহিত্য একাডেমির আজীবন সদস্য একেএম শিবলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন সাহিত্য একাডেমির সদস্য শাহনাজ জাহান, সাখীহা আলম, নুসরাত জাহান ও আফ্রিদি করিম। এছাড়া  একাডেমির সদস্যরা স্বরচিত কবিতা পাঠ ও সঙ্গীত পরিবেশন করে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares