গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ

0 0
প্রতিনিধি : দুর্নীতি ও ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানী লিমিটেডের বিভিন্ন পদে নিয়োগের জন্য  বাছাইয়ের পর স্থগিতকৃত ১৪৩ জনকে অবিলম্বে নিয়োগ প্রদান, আবাসিক-অনাবাসিক সহ সকল  প্রকার গ্যাস সংযোগ প্রদান, গ্যাস ফিল্ডের চাকুরীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জন্য ৪০ ভাগ কৌটা সংরক্ষন, গ্যাসকূপের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতিপূরনসহ  বিভিন্ন দাবিতে গতকাল সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা নাগরিক অধিকার সংগ্রাম পরিষদ। পৌর এলাকার বিরাসার এলাকায় অবস্থিত কোম্পানীর প্রধান কার্যালয়ের সামনে গতকাল দুপুরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা জেলা নাগরিক অধিকার সংগ্রাম অধিকার সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মেজর (অবঃ) জহিরুল হক খান বীর প্রতীক। বক্তব্য রাখেন জেলা নাগরিক অধিকার সংগ্রাম অধিকার সংগ্রাম পরিষদের সদস্য হাবিবুল্লাহ বাহার, আবুল কাশেম মাস্টার, নাসিমা চৌধুরী, ঝর্ণা রানী ভৌমিক, চাকুরী প্রত্যাশী জুবায়ের আহমেদ, এ.এইচ.এম নাহিদ কবির, রুহুল আমীন, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, চুড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা নেওয়ার পরও ১৪৩ জন চাকুরী প্রার্থীকে নিয়োগপত্র দেওয়া হচ্ছেনা। তাদের কাছে বার বার সময় চাওয়া হচ্ছে। বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চারন করে বলেন, অচিরেই দাবি পূরন করা না হলে গ্যাসের সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য ২০১০ সালের ৩ জুন ডেইলি স্টার ও ৫ জুন দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় ৩১টি পদে নিয়োগের জন্য বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ড কোম্পানী বিজ্ঞপ্তি দেয়। ২০১১ সালে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা হয়। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে ১৪৩ জনকে চুড়ান্ত নিয়োগের জন্য বাছাই করা করে নিয়োগ প্রার্থীদের মেডিকেল করা হয়। পরে এই নিয়োগ নিয়ে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠে। নিয়োগ নিয়ে অনিয়মের ঘটনা প্রকাশ হলে পেট্রোবাংলা ও সংসদীয় স্থায়ী কমিটির উদ্যোগে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়। কমিটির সুপারিশক্রমে বিজিএফসিএল’র তৎকালীন ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ নূরুল ইসলাম এবং জেনারেল ম্যানাজার (এইচআর) মুজিবুর রহমানকে শাস্তিমূলক বদলী করা হয় এবং নিয়োগের জন্য বাছাইকৃত ১৪৩জনের নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares