স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনে আপত্তি, পুনঃতদন্ত করে প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটনের দাবি ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাত্রলীগের

0 0

দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত একটি সংবাদের একাংশের প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগ। গতকাল শনিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত প্রতিবেদনের প্রতিও আপত্তি জানিয়েছে আওয়ামী লীগের ভাতৃপ্রতিম এ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল বলেন, প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম বিল্লাহ্ ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভনকে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত উল্লেখ করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে এটি মিথ্যা ও ভত্তিহীন এবং আমরা এ সংবাদের প্রতিবাদও জানিয়েছি। পাশাপাশি প্রকাশিত সংবাদটিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যে তদন্ত প্রতিবেদনের বরাত দেয়া হয়েছে সেটি সম্পর্কেও আমাদের আপত্তি রয়েছে। আমরা লিখিতভাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র সচিব ও পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) কাছে আবেদন করব বিষয়টি পুনঃতদন্তের জন্য। পুনঃতদন্ত করে প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটনের জন্য প্রথম আলোসহ সকল গণমাধ্যমের সহযোগীতা কামনা করছি।
এছাড়া সাংবাদিকদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দেয়ার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে রুবেল বলেন, কিছু অতিউৎসাহী ছাত্রলীগকে হেয় করার জন্যই এ কাজ করেছে। যারা এগুলোর সাথে জড়িত তাদের চিহ্নিত করে আমরা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিবো।
সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি সুজন দত্ত, শামীম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাঈম বিল্লাহ্, সাবেক দফতর সম্পাদক সাইদুল ইসলামসহ সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, গত ২৯ মার্চ দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তথ্য সূত্রের কথা উল্লেখ করে ‘মাদক ছড়িয়ে পড়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদে মাদক ব্যবসার সাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম বিল্লাহ্ ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন জড়িত বলেও উল্লেখ করা হয়। এ ঘটনায় প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি শাহাদৎ হোসেনকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares