মাওলানা হেমায়েতুল্লাহ নূরের ইন্তেকাল

0 1

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার খ্যাতিসম্পন্ন মাওলানা হাফেজ মো. হেমায়েতুল্লাহ নূর ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬০ বৎসর। সোমবার (১৭ এপ্রিল) ফজর নামাজ শেষে বাসায় ফেরার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা তাঁকে দ্রুত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আজ রাত সাড়ে ১০টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি অনার্স কলেজ মাঠে মরহুমের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিশ্বরোডস্থ খাটিহাতা মাদরাসা শায়খুল হাদীসের দায়িত্ব পালন করছিলেন। এছাড়া চলতি রমজানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের সরকার পাড়া জামে মসজিদে খতমে তারাবীহ’র নামাজও পড়াচ্ছিলেন। তিনি স্ত্রী ও এক মেয়েসহ ভাই-বোন এবং অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কান্দিপাড়ার বায়তুন নুর জামে মসজিদের খতিব ও মাওলানা হেমায়েতুল্লাহর দীর্ঘদিনের সহচর মাওলানা সফিউল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, মাওলানা হাফেজ মো. হেমায়েতুল্লাহ নূর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়ার পড়াশুনা শেষে করে উচ্চশিক্ষার জন্য ভারতের ঐতিহ্যবাহী দেওবন্দ গমন করেন। উচ্চ শিক্ষা শেষ করে দেশে ফিরে ইসলামের খেদমতে নিজেকে নিয়োজিত করেন।

ব্যক্তিজীবনে পরহেজগার, আল্লাহওয়ালা ও নিরহংকারী হেমায়েতুল্লাহ ছিলেন প্রচারবি মুখ। দেশের প্রখ্যাত আলেম পিতা মরহুম মুফতি নুরুল্লাহ (র.) এর পথ ধরেই তিনি নিজেকে ইসলামের খেদমতে আত্মনিয়োগ করেছিলেন।

আজীবন দ্বীনের পথে অটল থাকা এ মাওলানার আকষ্মিক মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশ-বিদেশের লক্ষাধিক আলেম শোকাভিভূত হয়ে মহান আল্লাহর নিকট হেমায়েতুল্লাহর নিরলস ইসলামী খেদমত কবুল ও তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares