পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে যুবকের দুই কান কর্তন

0 0

kacait pic 16-10-15

পূর্ব বিরোধের জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার কাছাইট গ্রামে মামুন মিয়া নামের এক যুবকের দুই কান কর্তন করে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকেরা। আজ শুক্রবার সকালে এ ঘটনাটি ঘটে। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মামুন সদর উপজেলার কাছাইট গ্রামের শহীদ মিয়ার ছেলে।

আহতের বড় ভাই হুমায়ূন জানান, গত আট মাস আগে হুমায়ূনের সঙ্গে সদর উপজেলার কাছাইট গ্রামের অপর শহীদ মিয়ার ছেলে সাঈদ মিয়ার মোবাইল ফোনের ব্যাটারি নিয়ে বিরোধ ঘটে। সাঈদ মিয়া কাছাইট আলিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন একটি দোকানে তার মোবাইল ফোন মেরামত করতে দেন। পরে সেখান থেকে সাঈদের মোবাইলের ব্যাটারিটি চুরি হয়ে যায়। এ নিয়ে দোকানির সঙ্গে সাঈদের তর্ক-বিতর্ক হয়। এসময় পাশের দোকানে থাকা হুমায়ূন এসে সাঈদকে থামাতে এলে তার সঙ্গেও তর্কে লিপ্ত হন সাঈদ। এ ঘটনার পর সাঈদ তার লোকজন নিয়ে হুমায়ূনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে পরিবারের সদস্যদেরকে পিটিয়ে আহত করেন। এসব ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় মামলা-পাল্টা মামলা দায়ের করে। তবে সাঈদের দায়েরকৃত মামলায় হুমায়ূনসহ তার পরিবারের পাঁচ সদস্য এক মাসের কারাভোগ করেন।

এতেও ক্ষান্ত হননি সাঈদ। কারাগার থেকে বের হয়ে আসার পর হুমায়ূনের উপর প্রতিশোধ নিতে আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠেন সাঈদ।
পরিবারের লোকজন জানায়, প্রতিদিনের মত আজো মামুন মিয়া কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়। পথিমধ্যে প্রতিপক্ষের লোকেরা পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে তার উপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এসময় হামলাকারীরা তার দুই কান কর্তন করে ফেলে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানন, এ ব্যাপারে এখনো কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares