পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ, পুলিশের বাধা

0 0


ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগ এবং পাঠ্যপুস্তকে সাম্প্রদায়িক উস্কানি, তথ্য ও ইতিহাস বিকৃতি, ধর্মবিরোধী মতবাদের অনুপ্রবেশ, বিজাতীয় সংস্কৃতির আধিপত্য ও ইসলামকে হেয় করার প্রতিবাদ এবং বিতর্কিত পাঠ্যপুস্তক সংশোধন করার দাবীতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার উদ্যোগে বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার বাদ আছর ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব চত্ত্বরে সমাবেশ করে দলটি। এরপর প্রেসক্লাবের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে কিছুদূর যেতেই পুলিশ বাধা দেয়।

ইসলামী আন্দোলনের জেলা সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে ও জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা মাহমূদুল হাসান হিফযের সঞ্চালনায় এবং সদ্য সাবেক প্রচার ও দা’ওয়াহ বিষয়ক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা শাহ মোহাম্মদুল্লাহ’র কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের জেলা সহ-সভাপতি কারী মাওলানা আব্দুল মালেক ফয়েজী, সেক্রেটারি মাওলানা গাজী নিয়াজুল করীম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের জেলা সভাপতি শেখ মুহাম্মদ শাহ আলম, সেক্রেটারি মাওলানা ফয়জুল্লাহ মুহসিন, ইসলামী যুব আন্দোলনের জেলা সভাপতি মুফতি আশরাফুল ইসলাম বিলাল, জাতীয় শিক্ষক ফোরামের জেলা সভাপতি মাওলানা হেলাল উদ্দীন ও আন্দোলনের নাছিরনগর উপজেলা সভাপতি মাওলানা হোসাইন আহমদ আজাদী প্রমুখ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগ করে মুসলিম উম্মাহের হৃদয়ে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। এই জঘন্যকাণ্ডের বিরুদ্ধে সরকারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা জ্ঞাপন করতে হবে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, এনটিসিবিতে ঘাপটি মেরে থাকা ইসলাম বিদ্বেষী ও মূল্যবোধ বিরোধী চক্র পাঠ্যপুস্তকে সাম্প্রদায়িক উস্কানি, ধর্মবিরোধী মতবাদের অনুপ্রবেশ এবং ইসলামকে হেয় করে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে চায়।

তাদেরকে চিহ্নিত করে নজিরবিহীন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বিতর্কিত পাঠ্যপুস্তক সংশোধন করার দাবী জানান।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

Shares